সাত দফা দাবিতে গৌরনদী টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিাটিউটের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ


বিডি কামাল,গৌরনদী।
ক্যাম্পাসে বকাটেদের ইভটিজিং ও বহিরাগতদের প্রবেশ বন্ধসহ সাত দফা দাবিতে, গতকাল শনিবার বরিশালের গৌরনদী সহিদ আবদুর রব সেরনিয়াবাদ টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিাটিউটের শিক্ষার্থীরা অবরোধ ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন। কতৃপক্ষ সব দাবি মেনে নিলে দুপুর দেরটায় শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নেন। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। দুই কর্মদিবসে দাবি না মানলে,পুনরায় আন্দোলনের কথা জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা ।
শিক্ষার্থীরা জানান, স্থানীয় বকাটেরা ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে ছাত্রী হোস্টেলে অবস্থানরত ছাত্রীদের প্রায় সময় উত্যক্ত করে অশ্লিল কতাবার্তা বলে। শিক্ষার্থীরা কতৃপক্ষের কাছে জানালেও তার কোন প্রতিকার হয় না। শক্রবার সন্ধায় ৫/৬জন বকাটে ইনস্টিটিউটের ছাত্রী হোস্টেলের ছাত্রীদের অশ্লিল ভাষায় উত্যক্ত করে। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা শনিবার দুপুর বারোটায় ক্যাম্পাসে সাত দফা দাবি আদায়ের জন্য বিক্ষোভ সমাবেশ,অবরোধ কর্মসুচির আয়োজন করেন। কতৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের দেয়া সাত দফা দাবি মেনে নেন এবং প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেয়ার আশ^াস দিলে দুপুর দেরটায় শিক্ষার্থীরা তাদের অবরোধ তুলে নেন। শিক্ষার্থীরা আরো জানিয়েছেন দুই কর্মদিবসের মধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা না নিলে তারা আবার তাদের দাবি আদায়ে কর্মসুচি দিবেন।

শিক্ষার্থীদের দেয়া সাত দফা দাবি,ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করা। শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। ইভটিজিং বন্ধ করা। সিসিটিভির ফুটেজ দেখে বকাটেদের পরিচয় নিশ্চিত করে আইনের আওতায় আনা। ক্যাম্পাসের প্রহরীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। ছাত্রী হোস্টেলের নিরাপত্তা বাড়ানো। ক্যাম্পাসে বাহির থেকে আসা শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা ও দুই কর্ম দিবসে দাবি বাস্তবায়ন করা।
গৌরনদী মডেল থানার ওসি তদন্ত মো.হেলাল উদ্দিন জানান,কতৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেয়ায় তারা তাদের কর্মসুচি প্রত্যাহার করেছেন। বর্তমানে ক্যাম্পাস শান্ত আছে।
সহিদ আবদুর রব সেরনিয়াবাদ টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিাটিউটের অধ্যক্ষ ইঞ্জিনিয়ার মো.হুমায়ুন কবির জানান,শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নেয়া হয়েছে,তারা তাদের কর্মসুচিও প্রত্যাহার করেছেন। এ বিষয়ে দ্রæত প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা নেয়া হবে।