স্টাফ রিপোর্টার,গৌরনদী।
আমাদের দেশের এ বন্য ফল সম্পর্কে খুব কম লোকই জানেন। মাটির বেগুন ? নামটি শুনে সকলেই ভেবেছিল এটি বেগুন। আমাদের দেশে বিস্তৃত জমিতে জন্ম হয়| পাকা ফল খাওয়া যায়| ঔষধি হিসাবে পুরো উদ্ভিদটি ব্যবহার করা যেতে পারে। এটি রক্ত সঞ্চালন, ডিটক্সিফিকেশন, নিম্ন পিঠে ব্যথা, বাত ও হাড়ের ব্যথা, অজানা ফোলাভাব , ফুসফুসের ঘাটতি এবং দীর্ঘস্থায়ী কাশি নিরাময় করতে পারে। অনিয়মিত স্রাব, ঘা, লাল চোখ, ফোলা , আঘাতজনিত ব্যথা রক্তক্ষরণ, স্তনের কার্বঙ্কাল, স্নেকহেড ঘা, তীব্র গ্যাস্ট্রোএন্টেরাইটিস, পেরেক প্রদাহ, কর্নিয়াল আলসার, আঘাতজনিত সংক্রমণ,ঘা, ইউরিক অ্যাসিড, গাউট, লালভাব এবং ঘা রোগের চিকিত্সার জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে।রোগ নিরাময়ে বায্যিক এবং আভ্যন্তরিন ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে গর্ভবতী মায়েদের এ ভেষজটি ব্যবহারে সতর্কতা এবং অভিজ্ঞ ভেষজবিদদের পরামর্শ গ্রহন করতে হবে। মানবদেহের বিভিন্ন রোগপ্রতিরোধ ও প্রতিকারে গুরত্বসহকারে ব্যবহার করা হয় মাটির বেগুন/গ্রাউন্ড বোতাম নামের এ ভেষজটি। ।(সৌজন্যে,গৌরনদী আইয়ুর্বেদিক সেন্টার)