Published On: Fri, Sep 15th, 2017

স্বরূপকাঠিতে ৫০ শয্যা হাসপাতালে ডাক্তার ১ জন

Share This
Tags

হযরত আলী হিরু, পিরোজপুর প্রতিনিধি ॥
পিরোজপুরের স্বরূপকাঠির ৫০ শয্যাবিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিতে ১ জন মাত্র ডাক্তার দিয়ে চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে। এতে করে চরম ভোগান্তিতে পড়ছে রোগীরা। উপজেলার আড়াই লক্ষ জনসংখ্যার একমাত্র ভরশাস্থল ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিতে শুধু অত্র উপজেলাই নয় পাশ্ববর্তী বানারীপাড়া, ঝালকাঠি, কাউখালি ও নাজিরপুর উপজেলা থেকেও রোগীরা চিকিৎসা নিয়ে থাকেন। গতকাল রোববার সকালে সরেজমিনে ওই হাসপাতালটিতে ঘুরে দেখা গেছে শত শত রোগী ডাক্তারের চেম্বার থেকে শুরু করে বারান্দা পর্যন্ত ভরা। ডাক্তার মো. আসাদুজ্জামান একাই ওই রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে চলছেন। এতে করে তিনি রোগীদের সামাল দিতে হিমসিম খাচ্ছেন অপরদিকে একজন রোগী ২/৩ ঘন্টা অপেক্ষা করেও ডাক্তারের সাথে সাক্ষাত করতে পারছেন না। হতাশ হয়ে চিকিৎসা না নিয়েই ফিরে যাচ্ছেন কেউ কেউ। এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডা. তানভীর আহম্মেদ সিকদার জানান, হাসপাতালটিতে ২০ জন ডাক্তারের স্থলে ১৩ জনের পদ শুন্য। যে ৭ জন ডাক্তার রয়েছেন তাদেরর মধ্যে ডা. নাজমুল হাসান মাসুদ খাঁন ঢাকায় ট্রেনিংয়ে, ডা. মেহেদি হাসান ডেপুটিশনে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, ডা. সাদিয়া আফরোজ ও ডা. প্রিয়াংকা বড়াল মাতৃত্বকালীন ছুুটিতে রয়েছেন। তিনি সহ ডা. ফিরোজ কিবরিয়া ও ডা. আসাদুজ্জামান এখন হাসপাতাল চালাচ্ছেন এদের মধ্যে একজন জরুরী বিভাগে দায়িত্ব থাকায় একজন দিয়ে হাসপাতাল চালানো বড়ই কষ্টকর হয়ে পড়েছে বলে তিনি জানান।

About the Author

-

%d bloggers like this: