ইয়াবা ব্যবসায় বাধা দেয়ায় ছাত্রলীগ নেতা মশুকে হত্যা

Share This
Tags

এস এম রহামান হান্নান, স্টাফ রিপোর্টার

রাজধানীর আদাবর এলাকার শেখেরটেকে দুর্বৃত্তদের হামলায় থানা ছাত্রলীগের পরিবেশ ও সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমান মশু (২৫) নিহত হয়েছেন। এলাকায় ইয়াবা ব্যবসায় বাধা দেয়ায় মশুকে খুন করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন তার বাবা জুলহাস মিয়া এবং আদাবর থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ মাহমুদ।
গত রোববার রাত ১১টার দিকে শেখেরটেকের ১০নং রাস্তায় দুর্বৃত্তরা তাকে মাথায় ইট ও রড দিয়ে আঘাত করে। পরে গুরুতর অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১২টার দিকে মারা যান মশু। এ ঘটনায় নিহতের বাবা জুলহাস মিয়া গতকাল সোমবার একটি মামলা করেছেন। মামলায় লেদু হাসান,
মোল্লা স্বপন, সেলিম, সাগরসহ আটজনকে আসামি করা হয়।
নিহতের বাবা অভিযোগ করেন, সেলিমের মাদক ব্যবসায় বাধা দেয়ায় লেদু হাসান তার ছেলেকে হত্যার হুমকি দিয়েছিল। গত শনিবার শেখেরটেকে সেলিমের বাসা থেকে লেদু বের হওয়ার সময় মশুর সঙ্গে দেখা হয়। এ সময় সেলিমের কাজে বাধা না দিতে মশুকে সতর্ক করে লেদু।
আদাবর থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ মাহমুদ জানান, লেদু হাসান, সেলিম, সাগর, মোল্লা স্বপনসহ এলাকার কয়েকজন দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা ব্যবসা করে আসছে। লেদু থানা যুবদলের আহ্বায়ক। তার বিরুদ্ধে হত্যা মামলাসহ তার লোকজনের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মাদক মামলা রয়েছে। এদের ইয়াবা ব্যবসায় সব সময় বাধা দিতেন মশু। কখনো সরাসরি, কখনো পুলিশকে তথ্য দিয়ে। আর এ কারণেই ছাত্রলীগ নেতা মশুকে হত্যা করা হয় বলে জানান তিনি।
আদাবর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম জানান, রাতে ওই এলাকা দিয়ে মোটরসাইকেলে বাসায় ফিরছিলেন মশিউর। এ সময় কয়েকজন রড ও লাঠি নিয়ে তার ওপর হামলা চালায়। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। কী কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তা তদন্তে বের হয়ে আসবে বলে জানান তিনি।

About the Author

-

%d bloggers like this: