Published On: Fri, Dec 8th, 2017

রাবার কাঠ ট্রিটমেন্ট প্লান্ট দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে অবদান রাখবে

Share This
Tags

জযনাল আবেদীন কমলগঞ্জ মৌলভীবাজার
শ্রীমঙ্গলে রাবার কাঠ ট্রিটমেন্ট প্লান্ট উদ্বোধনে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেন, বাংলাদেশে এটি নতুন প্রজেক্ট। দেশে রাবার ্এর ব্যবহার ছিল না। এখন এটি দেশের অর্থনীতিতে মূল্যবান অবদান রাখবে। আজকের এই আবিষ্কার দেশে ভাল ভাল ফার্নিচার তৈরিতে যুগান্তকারী ভূমিকা পালন করবে। এর মধ্যদিয়ে বিএফআইডিসি একটি লাভজনক প্রতিষ্ঠানে উন্নীত হবে। তিনি আরও বলেন, এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে প্রতি মাসে ২০ হাজার সিএফটি উৎপাদন হবে।
সিলেটের জীবন চক্র হারানো রাবার গাছগুলোকে জ্বালানী কাঠ হিসেবে ব্যবহার না করে আসবাবপত্রে ব্যবহারী কাঠে রূপান্তরিত করতে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে স্থাপন করা হয়েছে দেশের সর্ববৃহৎ রাবার কাঠ প্রেশার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট। শুক্রবার দুপুরে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্লান্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত এমপি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিবেশ ও বন মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এমপি ও উপমন্ত্রী আবদুলাহ আল ইসলাম জ্যাকব এমপি। অর্থমন্ত্রী প্রথমে ফিতা কেটে ও মোড়ক উম্মোচন করে রাবার কাঠ ট্রিটমেন্ট আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। পরে বন ও পরিবেশ মন্ত্রনালয়ের সচিব ইসতিয়াক আহমদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিএফআইডিসি’র চেয়ারম্যান ও অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ আবদুল কাদির এনডিসি।
বিশেষ অতিথির বক্তেব্যে বন ও পরিবেশ মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গত ১৫ বছর ধরে দেশ অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। এজন্য অর্থমন্ত্রীর যথেষ্ট অবদান রয়েছে। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ বিশাল সম্ভাবনাময় দেশ। দেশে এখন রাবার উৎপাদন হবে। সেই কাঠ সৃজন করা হবে এবং উৎপাদন ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে ভূমিকা পালন করবে। শুধু রাবার কাঠ নয়, অন্যান্য কাঠও সৃজন করতে মন্ত্রী আহ্বান জানান।
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট-২ আসনের সংসদস সদস্য ইয়াহিয়া চৌধুরী, মৌলভীবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দা সায়রা মহসীন, মৌলভীবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমান, সিলেট বিভাগীয় বনকর্মকর্তা আরএসএম মনিরুল ইসলাম, মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল আহমদ, পুলিশ সুপার মো. শাহজালাল, শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মোবাশশেরুল ইসলাম, অফিসার ইনচার্জ কে এম নজরুল প্রমুখ।
সূত্র জানায়, সম্প্রতী বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএফআইডিসি) এর নিজস্ব অর্থায়নে নব নির্মিত রাবার কাঠ ট্রিটটমেন্ট প্লান্টটি নির্মাণ করা হয়েছে। বর্তমানে সিলেট জোনে, সরকারী ৪টি রাবার বাগানে এই মুহুতে ৭ লক্ষ জীবন চক্র হারানো রাবার গাছ রয়েছে। যার বর্তমান বাজার মুল্য ১৯ কোটি টাকা আর ট্রিটমেন্টের পর তার মুল্য হবে ৩ শত কোটি টাকার উপরে। এর ফলে সরকার এ গাছ থেকে বর্তমানে প্রাপ্ত রাজস্ব থেকে ৪০ গুন বেশি রাজস্ব পাবে বলে আশা করা হচ্ছে।
বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন কর্পোরেশন চেয়ারম্যান ও বন ও পরিবেশ মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম সচিব মো. আব্দুল কাদির এনডিসি জানান, এ প্লান্টে প্রথম ধাপে প্রতিমাসে ২০ হাজার সিএফটি গাছ ট্রিটমেন্ট করা হবে। এতে একদিকে যেমন দেশের বনায়ন রক্ষার মাধ্যমে জলবায়ূ পরিবর্তন ও পরিবেশ রক্ষায় ভূমিকা রাখবে অন্যদিকে অর্থনৈতিকভাবে রাবার বাগানগুলোও লাভবান হয়ে উঠবে। বনশিল্প উন্নয়ন কর্পোরেশনের শ্রীমঙ্গলের মহা ব্যবস্থাপক ব্যবস্থাপক ইঞ্জিনিয়ার মো. শাকিল আহমদ বলেন, বর্তমানে প্রতি সিএফটি কাঠের মুল্য ২৫ থেকে ৩০ টাকা এবং সিজনিং এর পর তার মুল্য হবে ১২ শত টাকা থেকে ১৫ টাকা। এই গাছগুলো সৃজনিং করার পর সাশ্রয়ী মুল্যে স্থানীয় অধিবাসী তাদের অনান্য গাছও এখান থেকে সৃজনিং করতে পারবেন বলে তিনি জানান ।
পরিশেষে বন ও পরিবেশ মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান পরিদর্শন করেন। এ সময়ে তিনি বলেন, শহরবাসী যারা মনে করেন গাছপালা নেই তাদের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানে এসে সুন্দর মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশ উপভোগ করে যান। লাউয়াছড়া উদ্যানে অনেক বিরল প্রজাতির গাছপালা ও বন্যপ্রাণি রয়েছে। যেগুলো দেশের প্রাকৃতিক পরিবেশের এক গুরুত্বপূর্ণ আধার। শুক্রবার শ্রীমঙ্গলে রাবার কাঠ ট্রিটমেন্ট প্লান্ট এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে বিকাল ৩টায় তিনি লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান পরিদর্শন করেন।
এসময়ে বন ও পরিবেশ মন্ত্রী জাতীয় উদ্যানে একটি অজগর সাপ অবমুক্ত করেন এবং শিমুল গাছের চারা রোপন করেন। লাউয়াছড়া উদ্যান পরিদর্শনকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের সচিব ইসতিয়াক আহমদ, দৈনিক ইত্তেফাকের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক তাসমিমা হোসেন, সিলেট বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আরএসএম মনিরুল ইসলাম, বন্যপ্রাণি ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মিহির কুমার দো, সহকারী বন কর্মকর্তা তবিবুর রহমান। শ্রীমঙ্গলস্থ বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে অজগর সাপ অবমুক্ত করা হয়।

About the Author

-

%d bloggers like this: