Published On: Thu, Dec 7th, 2017

পিরোজপুরের লাইটার জাহাজের ধাক্কায় ফেরী অর্ধ নিমজ্জিত

Share This
Tags

হযরত আলী হিরু পিরোজপুর প্রতিনিধি
খুলনা-পিরোজপুর-বরিশাল আঞ্চলিক মহাসড়কের কঁচা নদীতে বেকুটিয়া ফেরীর সাথে লাইটার জাহাজের ধাক্কায় ফেরীর ব্যাক প্লেট ফেটে নদীতে নিমজ্জিত হয়েছে ইউটিলিটি ৩৬ নামের ফেরিটির একাংশ । ফেরিটি পিরোজপুরের কুমিরমারা প্রান্তের ঘাট থেকে ছেড়ে বেকুটিয়া ঘাট প্রান্তে যাওয়ার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় ফেরীতে থাকা অবস্থায় একটি বাস ও দুইটি মালবাহী ও গরু বোঝাই ট্রাক নদীর পানিতে তলিয়ে যায়। মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১ টার দিকে এ ঘটনার পর থেকে এ রুটে দুপুর ১ টা পর্যন্ত ফেরী চলাচল বন্ধ থাকে। ফেরীর ঘাট সুপারভাইজার মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম জানান, এ দুর্ঘটনায় ২ জন সামান্য আহত হলেও কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। ফেরির চালকের দুরদর্শিতা ও দক্ষতার কারনে ৩৫ জন মানুষ ও ৫০ টি গরুর জীবন বেঁচে গেছে।
বরিশাল ফেরী বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ শামিমুল হক জানান, রাত আনুমানিক ১ টার দিকে পিরোজপুরের কুমিরমারা ঘাট থেকে ফেরীটি ১ টি বাস, ৫টি ট্রাক ও ৩টি পিকাপ ভ্যান নিয়ে বেকুটিয়া ঘাটে যাচ্ছিল। এ সময় নদীর মাঝে একটি লাইটার জাহাজ ফেরিটিকে ধাক্কা দেয়। এতে ফেরির ব্যাক প্লেট ফেটে যায়। তখন ফেরীর চালক দ্রুত চালিয়ে ফেরীটিকে নদীর বেকুটিয়ার পাড়ের একটি চড়ে তুলে দেয়। ফাটলের অংশ থেকে ফেরীতে পানি উঠার কারণে কুয়াকাটা এক্সপ্রেস নামের একটি বাস ও ২ টি ট্রাক ফেরীতে থাকা অবস্থায় নদীর পানিতে তলিয়ে যায়। তবে এ সময় বাসে থাকা যাত্রীরা আগেই নেমে যায় বলে জানান ফেরির সুপারভাইজার। নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ শামিমুল হক আরো জানান, ফেরীটি নিমজ্জিত হওয়ার কারেণ এ রুটে ফেরী চলাচল বন্ধ থাকার পর বুধবার দুপুর ১টার দিকে বিকল্প ফেরি এনে চলাচল শুরু করা হয়েছে। এদিকে ফেরির ইজারাদার আজমির হোসেন বলেন, ফেরি দুইটির অবস্থা খুবই নাজুক। এই ঘাটে অচিরেই নতুন ফেরি দরকার। দুর্ঘটনা ছাড়াও বিভিন্ন সময় যান্ত্রিক ত্র“টির কারনে চলাচল বন্ধ থাকে এই ঘাটে। বরিশাল ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ মতিউর রহমান জানান, খবর পেয়েই বরিশাল থেকে পিরোজপুরের এসে দুর্ঘটনার শিকার ফেরীটি ও ফেরীতে থাকা যানবাহন উদ্ধার করা হয়েছে। দুর্ঘটনার শিকার ফেরীটি উদ্ধারের জন্য এক সাথে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, পুলিশ , কোষ্টগার্ড এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগ। পিরোজপুর জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খায়রুল আলম সেখ বলেন, বড় দুর্ঘটনা না হলেও ফেরির চালক কাউখালি প্রান্তের বেকুটিয়া চরে দক্ষতার সাথে নোঙর করতে পেরেছে। জীবনের হানি ঘটেনি তবে এ ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমানকে প্রধান করে দুই সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

About the Author

-

%d bloggers like this: