Published On: Mon, Nov 13th, 2017

গৌরনদীতে সৎ মায়ের নির্যাতনে শিশু ছাত্রের বাম কানের অর্ধেক ছিড়ে ঝুলে গেছে

Share This
Tags

গৌরনদী বরিশাল
শুক্রবার রাতে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার টরকী বন্দর সংলগ্ন নবীনগর গ্রামে এক সৎ মায়ের অমানুষিক নির্যাতনে সাইমুন (৮) নামের এক শিশু ছাত্রের বাম কানের অর্ধেক ছিড়ে ঝুলে গেছে। হৃদয় বিদারক এ ওই অমুনুষিক ঘটনাটি ঘটানোর পরও সৎ মা রয়েছেন বহাল তবিয়তে ।
এলাকাবাসী সুত্রে জানাগেছে, বিগত ৬ বছর পূর্বে ওই গ্রামের হালিম হাওলাদারের প্রথম স্ত্রী পূর্বে মারা যায়। এরপর সে সাথী বেগম নামের এক মহিরাকে দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে বিয়ে করেন। শিশুপুত্র সাইমুনের ওপর সৎ মা সাথীর অত্যাচার নির্যাতন দেখে অতিষ্ঠ হয়ে হালিম তার প্রথম স্ত্রীর শিশুপুত্র সাইমুনকে পার্শ্ববর্তি বড় কসবা গ্রামের শরীফবাড়ি নূরানী মাদ্রাসার ভর্তি করে সেখানকার আবাসিক বোর্ডিংয়ে রাখেন।
দ্বিতীয় শ্রেনীর ছাত্র সাইমুন জানায়, শুক্রবার বিকেলে সে বাড়িতে এসে ওইদিন রাতে বাড়িতে থেকে যায়। এ কারনে ক্ষিপ্ত সৎ মা তাকে গালিগালাজের এক পর্যায়ে অমানুষিক নির্যাতন করে। এতে তার বাম কানের অর্ধেক ছিড়ে ঝুলে যায়। এ সময় সাইমুনের চিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে এসে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে। খবর পেয়ে শিশু সাইমুনের পিতা হালিম বাড়িতে পৌঁছে স্থানীয় এক চিকিৎসকের মাধ্যমে সাইমুনের চিকিৎসা করায়। সৎ মা কর্তৃক শিশু ছাত্র সাইমুনকে অমানুষিক নির্যাতনের ঘটনায় প্রতিবেশীরা চরম ক্ষুব্ধ হলেও সাইমুনের পিতার নিরবতায় তারা চুপসে যান। ফলে শিশু নির্যাতনকারী সৎ মা রয়েছেন বহাল তবিয়তে।

About the Author

-

%d bloggers like this: