Published On: Tue, Nov 7th, 2017

কমলগঞ্জে ৯ বছর পর শিশু হত্যার দায়ে একজনের ফাঁসির আদেশ

Share This
Tags

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাদে উবাহাটা গ্রামের আপন ভাতিজা ৮ বছরের শিশু তাজুল ইসলাম ওরফে তাজু মিয়া হত্যা মামলার একমাত্র আসামী চাচা চান মিয়াকে ফাঁসির আদেশ ও ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে মৌলভীবাজার আদালত। ৭ নভেম্বর মঙ্গলবার মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম এই রায় ঘোষণা করেন। চান মিয়া কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের বাদে উবাহাটা গ্রামের আবু আলীর ছেলে।
মৌলভীবাজার আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০০৮ সালের ২৫ মার্চ সকাল সাড়ে সাতটার দিকে পারিবারিক জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। ঘটনার সময় চান মিয়া আপন ভাই মো. আলী আকবরের ছেলে তাজুল ইসলাম ওরফে তাজু মিয়া (৮)কে স্থানীয় মসজিদ থেকে ধরে নিয়ে মসজিদের পাশের জমিতে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। ঘটনাস্থলেই তাজুল মারা যায়।
পরে ঘটনার দিনই তাজুল ইসলামের বাবা আলী আকবর বাদী হয়ে কমলগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ঘটনার দুই মাস পর ২০০৮ সালের ২৫ মে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কমলগঞ্জ থানার তৎকালীন উপ-পরিদর্শক রতন চন্দ্র দেবনাথ মৌলভীবাজার আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। দীর্ঘ ৯ বছর পর আদালত সকল সাক্ষীর সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আসামি চান মিয়াকে দন্ডবিধির ৩০২ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে আদালত ফাঁসির রায় ঘোষণা করেন। রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট কৃপাসিন্ধু দাশ।

About the Author

-

%d bloggers like this: