Published On: Wed, Oct 25th, 2017

ডায়াবেটিসের রোগীদের স্নায়ুর জটিলতা কমায় মাছের তেল

Share This
Tags

ডেস্ক | ডায়াবেটিসের রোগীদের ক্ষেত্রে ?ডায়াবেটিস নিউরোপ্যাথি খুব জটিল একটি সমস্যা। ডায়াবেটিস হলে রক্তে শর্র্করার পরিমাণ বেড়ে যায়। আর রক্তের এই অতিরিক্ত শর্করা স্নায়ুর ফাইবারকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। বিশেষ করে পা এবং পায়ের পাতার স্নায়ু বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। হাত-পায়ে ঝিম ধরা, হাত-পা অবশ লাগা, শক্তি কমে যাওয়া এগুলো এই রোগের লক্ষণ।
এক গবেষণায় বলা হয়, মাছের তেল ডায়াবেটিসের এই প্রচলিত জটিল সমস্যা থেকে রক্ষা পেতে অনেকটাই সাহায্য করে। গবেষকরা বলেন, ডায়াবেটিস নিউরোপ্যাথি বা স্নায়ুর ক্ষতি ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ৫০ শতাংশ লোককে প্রভাবিত করে। ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি এসিড যাতে রয়েছে বিভিন্ন মাছের তেল, এই অবস্থার উন্নতি ঘটায়।
গবেষকরা আরো বলেন, ওমেগা -থ্রি ফ্যাটি এসিড রোগের সম্পূর্ণ প্রতিকার করতে না পারলেও অবস্থার উন্নতি ঘটাতে অনেকটাই সাহায্য করে। এই রোগ পুরোপুরি ভালো করে তেমন কোনো চিকিৎসা এখনো আবিষ্কৃত হয়নি। তবে রক্তে শর্করার পরিমাণ কমলে অবস্থার অনেকটা উন্নতি ঘটে। ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি এসিড স্নায়ুর কোষ বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।
গবেষকরা বলেন, মাছের তেল ডায়াবেটিসের কিছু ক্ষতিকারক প্রভাব থেকে স্নায়ুকে রক্ষা করে। এটি ডায়াবেটিস নিউরোপ্যাথির হার কমায়; প্রতিরক্ষামূলক এক ধরনের অণু তৈরি করে, যা স্নায়ুকে শক্তিশালী রাখতে সাহায্য করে। আরো একটি গবেষণায় বলা হয়েছে, ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি এসিড ওজনাধিক্য এবং রক্তে শর্করা কমাতে সাহায্য করে; লিভারের প্রদাহ রোধেও এটি কার্যকর। ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি এসিড পাওয়া যায় বিভিন্ন ধরনের সামুদ্রিক মাছে। টুনা, সারডিন্যাস, মাকেরেল ছাড়াও রূপচাঁদা, ইলিশ এবং পাঙ্গাশ মাছে ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি এসিড পাওয়া যায়। -হেলদি ফুড টিম।

About the Author

-

%d bloggers like this: