Published On: Thu, Aug 20th, 2020

উজিরপুর উপজেলার ৩৫ বছরেও সংস্কার হয়নি সড়ক, জনদূর্ভোগ

Share This
Tags


আঞ্চলিক প্রতিনিধি, বরিশাল।
জেলার উজিরপুর উপজেলার হারতা ইউনিয়নের ছয় কিলোমিটার ইটের সলিং রাস্তা দীর্ঘ ৩৫ বছরেও সংস্কার না করায় চরম দূর্ভোগে পরেছে হারতা ও জল্লা ইউনিয়নের কয়েক হাজার বাসিন্দারা।
সরেজমিনে দেখা গেছে, হারতা থেকে জল্লা প্রবেশের আঞ্চলিক ছয় কিলোমিটার রাস্তাটির ইট উঠে পুরো কাঁদা-মাটির রাস্তায় পরিণত হয়েছে। চলতি বর্ষা মৌসুমে পুরো রাস্তাটি কাঁদা-পানিতে একাকার হয়ে বেহাল দশার সৃষ্টি হয়েছে। ফলে প্রতিদিনই দুর্ঘটনার স্বীকার হচ্ছেন এ রাস্তা দিয়ে যাতায়তকারীরা।
স্থানীয়রা জানান, ১৯৮০ সালে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি) এই রাস্তাটি নির্মাণ করে। নির্মাণের কয়েক বছর পর থেকেই রাস্তাটি চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়লেও এখন পর্যন্ত সংস্কার করা হয়নি। অথচ রাস্তাটি ব্যবহার করে স্থানীয় বাসিন্দারা যাতায়াতের পাশাপাশি প্রতিদিন কৃষি পণ্য ও মৎস্য সম্পদ জেলার বিভিন্নস্থানে পরিবহনযোগে সরবরাহ করে আসছেন।
স্থানীয় বাসিন্দা শিশির বিক্রম জানান, কয়েক দিন পূর্বে বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের বিভাগীয় প্রধান প্রকৌশলী মোঃ সাজিদুর রহমান সরদার সাতলা-বাগধা প্রকল্পের পুনর্বাসন কাজ পরিদর্শনে গিয়ে দীর্ঘদিনের চলাচল অযোগ্য রাস্তাটি সংস্কারের জন্য গত ১৪ জুলাই স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) বরিশাল বিভাগীয় অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীর নিকট লিখিতভাবে আবেদন করেন। তবে ওই আবেদনের পর এখন পর্যন্ত রাস্তাটি সংস্কার করা হয়নি।
হারতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হরেন রায় জানান, ‘দীর্ঘ প্রায় চল্লিশ বছর আগে নির্মিত ওই রাস্তাটি সংস্কারের জন্য উপজেলা এলজিইডি কার্যালয়ে একাধিকবার আবেদন করা হলেও কোন সুফল মেলেনি। গত চল্লিশ বছরে অনেক সংসদ সদস্য পরিবর্তন হলেও রাস্তাটি পরিবর্তন হয়নি।
উজিরপুর উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের প্রকৌশলী এ.কে.এম রেজাউল করিম জানান, রাস্তাটি দীর্ঘ বছর ধরে চলাচলের অযোগ্য বলে শুনেছি। তবে দ্রুত সংস্কারের জন্য চেষ্টা চলছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

About the Author

-

%d bloggers like this: