মানবিক পুলিশ সুপার আবদুর রব হাওলাদার

Share This
Tags


আহছান উল্লাহ।
বরিশালের গৌরনদী (গৌরনদী-আগৈলঝাড়া থানা) সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আবদুর রব হাওলাদার একজন মানবিক পুলিশ কর্মকর্তা। পুলিশ বিভাগের একজন চৌকশ কর্মকর্তা হয়েও সম্যক জ্ঞান রাখেন পরিবেশ প্রকৃতির উপর। করোনা দুর্য্যোগে খাদ্যসহায়তা,করোনাকালিন আইনশৃঙ্খলা পরিস্তিতি উন্নয়নে দিনরাত ছুটে চলা এবং পুষ্টি বাগান,আগাম শীতকালিন স্বজি চাষ,মাদকাসক্তদের পুনবার্সনে ব্যাপক সফলতা অর্জন করেছেন তিনি।
জানাগেছে ২০১৮ সালের ৪ ্এপ্রিল তিনি গৌরনদীতে যোগদান করেন। যোগদানের পর তিনি মাধকের উপর বেশী নজরদেন। দুই থানায় ৪৬ জন মাধকাসক্ত ও মাধক ব্যবসায়ীকে আত্মসমর্পন করিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে এনে পুনর্বাসন করেছেন। এদেরকে গরু,ছাগল,সেলাই মেসিন,রিকসা ভ্যান প্রদান করেন। করোনা দুর্য্যােগে তাদের ব্যাপক খাদ্যসহায়তাও দিয়েছেন। পুর্নবানকৃতদের মধ্যে গৌরনদী মডেল থানায় ২১ জন,আগৈরঝাড়া থানায় ২৫ জন। তার অফিস কম্পাউন্ডে করেছেন বিষমুক্ত স্ববজি চাষ। আগাম শীতকালীন স্ববজি চাষ। এবং দুই থানার পরিদর্শকদের পুষ্টি বাগান এবং বৃক্ষরোপনে নির্দেশনা প্রদান ও উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছেন।

স্থানীয ব্যবসায়ী এবং গৌরনদী সার্কেল অফিসের প্রতিবেশী বাসিন্ধা আকন কামাল হোসেন জানান, পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে ্ওনি একজন ভালো মনের মানুষ। অনেক সময় দেখেছি কোদাল কাঁচি নিয়ে নিজে লেবারের মত কাজ করছেন।

গৌরনদী সার্কেল অফিসে কর্মরত পুলিশ সদস্য বদরুর রহমান ও উপ পরিদর্শন কাওছার হোসেন জানান, সারেসহ আমরা সবাই ম্যাচে খাওয়াদাওয়া করি। বিষমুক্ত স্ববজি আরো নিজেদের হাতে চাষ করা খুবই আনন্দদায়ক বিষয়।
গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক গোলাম ছাড়োয়ার বলেন সার একজন ভালো মনের মানুষ ভালো কাজে আমাদের উৎসাহ দেন।
আগৈলঝাড়া থানার পরিদর্শক আফজাল হোসেন জানান সারের প্রসংশা করলে অনেক করা যায়। তবে গৌরনদী আগৈলঝাড়া থানা এলাকায় আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক যে কোন ঘটনা ঘটলে ্ওনি তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে ছুটে যান এবং ভূক্তোভোগিদের সাথে কথা বলে ব্যবস্তা গ্রহন করেন।
একান্ত সাক্ষাতকারে গৌরনদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আবদুর রব হাওলাদার বলেন,দেখুন আমরা সবাই মানুষ। কে পুলিশ কে সাধারন মানুষ এটা নয়। আমি নিজেও দেশের প্রচলিত আইনের বাইরে নয়। আগে আমাকে নিজেকে পরিবর্তন করতে হবে। পুষ্টি বাগান আমাদের ব্যাপক উৎসাহি করেছে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর নির্দ্দেশ এক ইঞ্চি জায়গা খালি রাখা যাবেনা এ ঘোষনায়। আর আমি যাহা কিছু করেছি উর্ধতন কতৃপক্ষের দিকনির্দ্দেনায় করেছি। পাশাপশি আমার অধিনে দুই থানায় কর্মরত সকল পুলিশরাই নিরলশভাবে কাজ করছেন। সর্বপরি পুলিশ এমন একটা জায়গা মানব সেবার একটা গুরত্বপূর্ন সহযোগি প্রতিষ্ঠান। (প্রতিবেদন এর ছবি ও সহযোগীতায় বিডি কামাল ও মুন্সি রবিউল)

About the Author

-

%d bloggers like this: