Published On: Sat, Jun 20th, 2020

‘সেই মেয়েটা

Share This
Tags
চায়না দেবনাথ । 
সেই মেয়েটা- উঠোন জুড়ে করতো খেলা, অাত্ব ভোলা,
অাঙি্গনাতে ছড়িয়ে পুতুল,
উধাও হতো  বায়ুর সাথে।
নদীর ঘাটে, জলে ঢেউয়ে কাপন তুলে, দলবেঁধে সব দস্যি মেয়ে।
সূর্যি  যখন অস্তাচলে,  দুলিয়ে বেনী গায়ের পথে, ছাগ ষাবকের পিছু  ছোটে,
এ আমাদের  মিস্টি মেয়ে।
চলতে পথে  ব্যাথা পেলে, মায়ের অাচঁল জড়িয়ে গায়ে ,
মায়ের  বুকে মুখ লুকিয়ে, মিথ্যে  কাঁদোন  ক্ষনস্থায়ী,  মায়ের পরশ লাগিয়ে গায়ে,
ছুটতো অবার দস্যি মেয়ে।
হাট থেকে যেই ফিরতো বাবা!!!  নানান রকম বায়না ধরে, খেলনা পুতুল  কেনার ছলে ,  সুর বেসুরো কান্না জোড়ে,
চোখ থেকে জল পড়তো না তার,
অাদায় হোতো সুকৌশলে।
হারিয়ে গেছে  সেই আদর টাই,
পাথর হয়ে বুকের মাঝে, তবুও যেন অদৃশ্য হাত , স্নেহভরে  মাথায়  রাখে ।।
সখি গনের প্রান প্রিয় সে,  কতো গল্প,কতোই কথা !!!   ক্ষনে ক্ষনে – পড়লে মনে, লুকিয়ে হাসে বন্ধুসখা।
প্রাপ্তহীক কতোই  স্বৃতি  ভেষে ওঠে মনের কনে, খেই হারিয়ে তাকিয়ে থাকে,
উদাস হয়ে আকাশ পানে। চোখের কনে দু-ফোটা জল,
বাস্পো করে উড়ায়  সবাই,  মনে মনে বলে ওঠে , ভালো থাকিস – বন্ধু, সদাই ।।
আজ সে মেয়ে ডাঙর হলো!  ডাগর চোখে কাজল পরা,  আলতা পায়ে নুতন পথে, নুতন ঘরে, নুতন সখা। কু-দৃস্টিতে অনল জ্বালি, ফুল বিছানো সর্গপুরি,  অানন্দময় করবে ভুবন,  সবার অাশা পূর্ণ করি। প্রার্থনা রয়  স্রোস্টার পায়ে  ,  সুখে  থাকুক  লক্ষি মেয়ে ।

About the Author

-

%d bloggers like this: