গৌরনদীতে বরজেই নষ্ট হচ্ছে পান

Share This
Tags


আহছান উল্লাহ,
করোনা ভাইরাসের সংক্রমন প্রতিরোধে সারাদেশে যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ থাকায় বরিশালের গৌরনদীতে বরজেই নষ্ট হচ্ছে পান। লঞ্চ,ট্রাক,ট্রলি ও পিকআপসহ সব ধরনের যাবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় চাষীরা পান তুলে বাজারজাত করতে পারছেননা। স্থানীয় বাজারেও বিক্রি হচ্ছে না পান। সময়মত পরিচর্জাও হচ্ছে না বরজের। এতে পানের রাজধানী খ্যাত গৌরনদীর প্রায় ৯শ হেক্টর জমির পান বরজেই নষ্ট হচ্ছে। করোনা পরবর্তি সময়ে দুর্ভোগে পরতে পারেন বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এলাকার পান চাষের সাথে প্রত্যক্ষ ও পরক্ষ্যভাবে জড়িত হাজার হাজার মানুষ।
গোবর্দ্ধন গ্রামের পান চাষী মামুন সরদার জানান,গৌরনদীর পানের বড় বাজার সিলেট,চট্রগ্রাম,ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে। গৌরনদীতে চাষকৃত পান সড়ক ও নদী পথে দেশের বিভিন্ন এলাকায় সরকরাহ করা হয়। করোনার কারনে পান বাজার, আড়ত ও সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। আর পান প্রক্রিয়াজাতও করা যায় না যে কারনে পান বরজেই নষ্ট হচ্ছে।

উত্তর চাঁদশি গ্রামের পান চাষী সুসান ভদ্র,জীবন কর ও আপন গাজী জানান, প্রথাগত পান বরজে ঋতুভিত্তিক পরিচর্যা ও পান তোলা একটি গুরত্বপূর্ন বিষয়। কারন পান হল অত্যন্ত সুখী, সংবেদানশীল, লতানো বহুবর্ষজীবি অর্থকরি ফসল। দক্ষ শ্রমিকের দিয়ে সময়মতো বরজ মেরামত না করলে ফলন মার খায়। প্রতিদিন পান বরজের পরিচর্জা করতে হয় আবার সময়মত পান না তুললে পান বরজে বিভিন্ন রোগ দেখা দেয়। বর্তমানে পানের বাজার ভালো অথচ করোনার কারনে আমরা কঠিন মার খাচ্ছি। স্থানীয় বাজার ও সরবরাহ বন্ধ থাকায় অনেক পান চাষী পথে বসার উপক্রম হয়েছে।
পানের আড়তদার ওসমানগনি,কাসেম ফড়িয়া নুরু সরদার,বিপুল বালা জানান,এলাকার কয়েক হাজার মানুষ পানের উপর ভিত্তি করে সংসার চালান। ঘুর্নিঝড় বুলবুলের আঘাত হানার পর পান চাষিরা কেবল মাজা সোজা করে দাড়াবে এ সময় করোনার প্রভাব। কি করার আছে যেহেতু এটি একটি বৈশ্বিক মহামারি তারপড়েও সরকারের কাছে আমারা সুদৃষ্টি কামনা করছি।
গৌরনদী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শেখ মামুনুর রহমান বলেন, এখন একটা বৈশ্বিক সমস্যা চলছে। যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ থাকায় পান বাজারজাতকরনে সমস্যা হচ্ছে। পান চাষের বিষয়ে সচেতনার সাথে চাষীদের আমরা বিভিন্ন রকম সেবা ও পরামর্শ দিচ্ছি।

About the Author

-

%d bloggers like this: