Published On: Thu, Jan 2nd, 2020

মুলাদীতে ঝলসে দেয়া হল মা মেয়েকে

Share This
Tags

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, বরিশাল
বাড়িতে প্রবেশের একমাত্র রাস্তায় ময়লা আবর্জনা ফেলতে নিষেধ করায় ক্ষিপ্ত হয়ে ভাতের গরম মার নিক্ষেপ করে ঝলসে দেয়া হয়েছে স্কুল শিক্ষিকা ও তার মেয়েকে। মুমূর্ষ অবস্থায় তাদের উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করার পর বুধবার রাতে উন্নত চিকিৎসার জন্য মা ও মেয়েকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনাটি জেলার মুলাদী উপজেলার সফিপুর ইউনিয়নের চরমালিয়া গ্রামের।
স্কুল শিক্ষিকার স্বামী ওই গ্রামের বেপারীর হাট সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা সেলিম আহমেদ সিকদার জানান, তাদের বাড়িতে প্রবেশের একমাত্র রাস্তায় দীর্ঘদিন থেকে ময়লা আবর্জনা ফেলে আসছিলো প্রতিবেশী মোতালেব সরদারের স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা। এতে তারা বাঁধা দেয়া সত্বেও রাজিয়া তাতে কোন কর্ণপাত করেনি। তিনি আরও জানান, বুধবার বিকেলে তার স্ত্রী মধ্যচরমালিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা শাহিনা আক্তার স্কুল থেকে তার কলেজ পড়–য়া মেয়ে শান্তা আক্তারকে নিয়ে বাড়িতে ফেরার পথে রাস্তায় ময়লা আবর্জনা দেখে রাজিয়াকে ডেকে জিজ্ঞাসা করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তার (রাজিয়া) হাতে থাকা ভাতের গরম মার নিক্ষেপ মা ও মেয়েকে লক্ষ্য করে নিক্ষেপ করে। এতে শাহিনা আক্তার ও তার মেয়ে শান্তার শরীরের বেশ কিছু অংশ পুরে যায়।
সেলিম আহমেদ সিকদার আরও জানান, তার স্ত্রী ও কন্যার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে তাদের অবস্থার অবনিত হলে রাতে চিকিৎসকেরা শাহিনা ও শান্তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

About the Author

-

%d bloggers like this: