Published On: Wed, Oct 23rd, 2019

গৌরনদীর সফল কৃষক সজল সরকার

Share This
Tags

রিপোর্ট,আহসান উল্লাহ।

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া গ্রামের মৃত সমিরন সরকারের ছেলে আতœপ্রত্যয়ী শিক্ষিত যুবক সজল সরকার। আম বাগান, ধান,মাছ চাষ ও মুরগী পালনে সফলতার পর এবার মাল্টা চাষে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। মাছের ঘেড়ের পরিত্যাক্ত পাড়ে বারি-১ জাতের মাল্টা চাষ করে ইতমধ্যে প্রায় লক্ষাধীক টাকার মাল্টা বিক্রি করেছেন। জৈব প্রযুক্তি ব্যবহারের কারনে ফলন ভালো হওয়ার কথাও জানান তিনি। তার সফলাতায় এলাকার অনেক বেকার যুবক আগ্রহী হয়ে উঠছেন কৃষি কাজে।
বরি-১ জাতের ‘মাল্টা’ চাষ অর্থনৈতিকভাবে লাভজনক হওয়ায় নিজের মাছের ঘেরের পাড়ের পরিত্যাক্ত জমিতে বাণিজ্যিকভাবে মাল্টা বাগান করেন তিনি। প্রথমে বারি-১ জাতের মাল্টা’ বা (কয়েন মাল্টা’র) ৭০টি চারা রোপন করেনে। মাত্র আড়াই বছরের মাথায় প্রতিটি গাছে ফুল আসে এবং ফল ধরতে শুরু করে। প্রথমবারেই তার ৭০টি মাল্টা গাছে ১২ মনেরও অধিক ফল ধরেছে। এখনও তার গাছে যে পরিমান মাল্টা আছে তাতে ৫ মনের বেশী হবে বলে তিনি আশা করছেন।
সজল সরকার জানান মাল্টা চারা ক্রয়, রোপন ও পরিচর্যা করতে সার, ঔষধসহ তার প্রায় ৫ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। তিনি জানান জৈব প্রযুক্তি ব্যবহারের কারনে ফলন ভালো হয়েছে। প্রথমবারেই তার মাল্টা বাগানের ৭০টি গাছে যে পরিমান ফল ধরেছে তা থেকে বিনামুল্যে বিতরণের পরেও লক্ষাধীক টাকা বিক্রি করেছেন। তার গাছে ফলা মাল্টাগুলো বেশ রসালো এবং মিষ্টি। এ কারনে তিনি মাল্টা তুলে পার্শ¦বর্তি বাজারে নেয়ামাত্র বিক্রি হয়ে যায়।
উল্লেখ্য বারি-১ জাতের মাল্টাগুলোর বোটার উল্টোদিকে জন্মগতভাবে পঞ্চাশ পয়সা বা এক টাকার কয়েনের আদলে একটি ষ্পষ্ট ছাপ আছে। যে কারনে বারি-১ জাতের এ মাল্টাকে কয়েন মাল্টাও বলা হয়।
গৌরনদী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ মামুনুর রহমান জানান, এগুলো পাহাড়ি অঞ্চলের ফল। বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনষ্টিটিউট সমতল অঞ্চলে চাষের উপযোগী করে বারি-১ জাতের মাল্টা’র এ জাতটি উদ্ভাবন ও অবমুক্ত করেন। বারি-১ জাতের এ মাল্টাটি উচ্চ ফলনশীল ও নিয়মিত ফলদানকারী ভিটামিন সি সমৃদ্ধ একটি ফল। পাঁকা ফল দেখতে বেশ আকর্ষণীয় এবং খেতেও সু-স্বাদু। ফল্গুন মাসের মাঝামাঝি থেকে চৈত্র মাসের মাঝামাঝি সময়ে এ মাল্টা গাছে ফুল ধরা শুরু করে। আশ্বিন, কার্তিক মাসে ফল পাঁকতে শুরু করে। হেক্টর প্রতি এর ফলন হয় প্রায় ২০ মেট্রিক টন। মাল্টা চাষে অল্প খরচে অধিক লাভ করা সম্ভব।

About the Author

-

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

%d bloggers like this: