Published On: Wed, Aug 28th, 2019

গৌরনদীর ব্যবসায়ীক পাটনারের টাকা নিয়ে গাঁঢাকা দিয়েছে নাটোরের ঠিকাদার

Share This
Tags

স্টাফ রিপোর্টার,গৌরনদী।

বরিশালের গৌরনদীর এক ব্যবসায়ীক পাটনারের টাকা আতœসাত করে গাঁ ঢাকা দিয়েছে এস.আর বিল্ডার্স নামের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধীকারী ও নাটোর জেলার গুরুদাসপুর থানা সদরের বাসিন্ধা মোঃ আব্দুর রহমান (৫০) নামের এক ঠিকাদার। বরিশালের গৌরনদীর বে-সরকারি উন্নয়ন সংস্থা সিসিডিবি সিপিআরপি’র সাথে ঠিকাদার হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হয়ে একটি বানিজ্যিক ভবন নির্মান করতে গিয়ে পাটনারের সাথে প্রতারনা করে সে গাঁ ঢাকা দেয়।
এর ঘটনায় পলাতক ঠিকাদার মোঃ আব্দুর রহমান ও তার শ্যালক মোঃ সবুজ হোসেনকে আসামী করে মঙ্গলবার দুপুরে বিজ্ঞ বরিশাল অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালতে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঠিকাদার আব্দুর রহমানের ব্যবসায়ীক পাটনার গৌরনদী উপজেলার উত্তর বিজয়পুর গ্রামের বাসিন্ধা পুলিশের অবসরপ্রাপ্ত ইন্সপেক্টর মোঃ শাহ আলম খানের ছেলে ঠিকাদার ও মৎস্য হ্যাচারী ব্যবসায়ী মোঃ মহসিন খান বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন। আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে ওই দিনই আসামীদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করেছেন।
জানাগেছে, পলাতক ঠিকাদার আব্দুর রহমান গৌরনদীর বে-সরকারি উন্নয়ন সংস্থা খ্রীষ্টান কমিশন ফর ডেভলপমেন্ট ইন বাংলাদেশ সিসিডিবি সিপিআরপি’র একটি বাজিজ্যিক ভবন নির্মান করার জন্য এ বছরের জানুয়ারী মাসে ঠিকাদার হিসেবে চুক্তিবদ্ধ হন। এরপর তিনি ভবনটির নির্মান কাজ শুরু করেন। কাজ চলাকালে তিনি অর্থ সংকটে পড়েন। ফলে তিনি ৩০০টাকার একটি ষ্টাম্পে চুক্তির মাধ্যমে গৌরনদীর ঠিকাদার ও মৎস্য হ্যাচারী ব্যবসায়ী মোঃ মহসিন খানকে ওই নির্মান কাজের পাটনার হিসেবে নিযুক্ত করে তার কাছ থেকে নগদ ৭লক্ষ টাকা নেন। এ সময় তার সঙ্গী ছিলেন তার শ্যালক মোঃ সবুজ হোসেন এর পাশাপাশি তিনি স্থানীয় বিভিন্ন বানিজ্যিক প্রতিষ্ঠান থেকে বাকিতে নির্মান সামগ্রী ক্রয় করেন। ফলে একটি বড় অংকের ঋনের জালে জড়িয়ে পড়েন তিনি। এ অবস্থায় গত মে মাসের শেষ দিকে পাওনাদারদের টাকা ও লেবার মিস্ত্রীদের বকেয়া না দিয়ে এবং পাটনার মোঃ মহসিন খানের টাকা আতœসাত করে নির্মান কাজ অসমাপ্ত অবস্থায় ফেলে রেখে রাতের আধারে গাঁ ঢাকা দেয়।
প্রতারনার শিকার পাটনার মোঃ মহসিন খান জানান, গা ঢাকা দেয়া ঠিকাদার মোঃ আব্দুর রহমানের পিতার নাম মোঃ মতলেব আলী। তাদের বাড়ি নাটোর জেলার গুরুদাসপুর থানা সদরে হলেও সে পিতার পরিবার থেকে বিতারিত। ফলে বর্তমানে সে তার স্বশুর বাড়ি কুমিল্লা জেলার লাকসাম থানার আজগোরা বাজার এলাকার উত্তরডা গ্রামে অবস্থান করছে। আমি তার খোজে সেখানে গিয়েছিলাম। আমার আগমনের খবর পেয়ে সে অন্যত্র পালিয়ে যায়। এ অস্থায় টাকা উদ্ধারে মামলা দিতে বাধ্য হয়েছি।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ঠিকাদার মোঃ আব্দুর রহমানের বক্তব্য জানার জন্য তার-০১৭১৪১১৩০২৮, ০১৮১৬০৬৯৫৪২ নম্বরের মোবাইল ফোনে একধিক বার ফোন করা হলে নম্বর দুটি বন্ধ পাওয়া যায়।

About the Author

-

%d bloggers like this: