Published On: Thu, Jun 27th, 2019

স্বামীকে বাঁচাতে পারলেন না স্ত্রী! । দাঁড়িয়ে দেখল সবাই!

Share This
Tags


মোঃ রিফাত হোসেন মোল্লাহ ঃ
গত ২৬ জুন, ২০১৯ বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে শাহ নেয়াজ রিফাত শরীফ (২৫) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করল এক ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী তার সহযোগী ছিল একজন। গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সেখানে তাকে আশঙ্কা জনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে এক ঘণ্টা পর বিকেল সাড়ে তিনটার মৃতুর কোলে ঢলে পরেন শাহ নেয়াজ রিফাত শরীফ । এ ঘটনাটি পুলিশের সিসি ক্যামেরার আওতায় ছিলো বলে জানা গেছে।
এদিকে রিফাতকে কুপিয়ে হত্যার ভিডিও দ্রুত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা ভাইরাল হয়। ভিডিওটিতে দেখা যায় সন্ত্রাসী ধারালো দা দিয়ে এলোপাথারি কোপাতে থাকে রিফাতকে। এ সময় রিফাতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা সন্ত্রাসী দুই জনকে বারবার প্রতিহত করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন।
। নিহত রিফাত শরিফের বাড়ি বরগুনা সদর উপজেলার ৬ নং বুড়িরচর ইউনিয়নের বড় লবনগোলা গ্রামে। তার পিতার নাম আ. হালিম দুলাল শরীফ। বাবা মায়ের একমাত্র ছেলে রিফাত।


প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, যে দুজন সন্ত্রাসীকে কুপিয়ে জখম করতে দেখা গেছে তাদের একজনের নাম নয়ন বন্ড এবং রিফাত ফরাজী। তারা উভয়েই স্থানীয়ভাবে ছিনতাই ও মাদক ব্যবসাসহ নানা অপকর্মের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছে। এসব ঘটনায় একাধিকবার পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে বলে জানান বরগুনা থানার দাযিত্বরত পুলিশ অফিসার ।
নিহতের পারিবারিক সূত্র ও পুলিশ জানায়, নিহত রিফাত ২ মাস আগে আয়শা সিদ্দিকা মিনিকে বিয়ে করে । বিয়ের পর থেকে মিনিকে উত্ত্যক্ত করে কলেজ ব্রাঞ্চ রোডের ধানসিড়ি এলাকার আবু বকর সিদ্দিকের ছেলে নয়ন । নয়ন মিনির সাবেক প্রেমিক দাবি করায় রিফাত ও নয়নের মধ্যে দন্ধের শুরু আর পুলিশসহ এলাকা বাসির ধারনা এই হত্যাকান্ডের এটিই মূল কারন হতে পারে ।
এ বিষয়ে বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবীর হোসেন মাহমুদ জানান, ঘটনাটি যেখানে ঘটেছে সেখানে পুলিশের সিসি ক্যামেরা রয়েছে। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে খুনীদেরকে সনাক্ত করা গেছে। অভিযান চলছে শিগগিরই অপরাধীদের গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হবে পুলিশ। পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এ ব্যাপারে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছেন। ঘটনাটি মানবধিকার লঙ্গনের চড়ম পরকাষ্ঠা।

About the Author

-

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

%d bloggers like this: