Published On: Wed, Oct 4th, 2017

কমলগঞ্জে মহিলার সংবাদ সম্মেলনে হয়রানির অভিযোগ

Share This
Tags

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি

ক্ষুদ্র ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের মারটিপ ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার অভিযোগ তোলেছেন কমলগঞ্জ পৌরসভার কুমড়াকাপন গ্রামের তাউসেন মিয়ার স্ত্রী হাছিনা বেগম। গতকাল (৪ অক্টোবর) বুধবার দুপুরে উপজেলা সদরে একটি হলরুমে সংবাদ সম্মেলনে হাছিনা বেগম এই অভিযোগ করেন।
লিখিত অভিযোগে হাছিনা বেগম বলেন, রাস্তা থেকে এক কোদাল বালি নেয়ার অপরাধে ২০১৫ সনের ২ নভেম্বর একই এলাকার মোহাম্মদ আলী উরফে ইসলাম মিয়া ও তার ছেলে মাসুদ রানা কর্তৃক মারপিট করে নগদ টাকা ও স্বর্নালংকার নিয়ে আমাকে বিবস্ত্র করে। এ ঘটনায় মৌলভীবাজার আদালতে একটি মামলা দায়ের করি। পরবর্তী ২০১৫ সনের ১৯ নভেম্বর মোহাম্মদ আলী ও তার ছেলে মাসুদ রানা আমার স্বামী তাউসেন মিয়াকে প্রাণে হত্যার উদ্দেশ্যে শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে। এ ঘটনায় কমলগঞ্জ থানায় একটি মামলা করা হয়েছে বলে তিনি জানান। দু’টি মামলাই বিচারাধীন থাকায় মামলা প্রত্যাহারের জন্য তাদের সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে নানাভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছে।
মোহাম্মদ আলীর ছেলে মাসুদ রানা রুবেল গত ১৭ আগষ্ট ভোরে চট্রগ্রাম-সিলেটগামী ৭২৩ নম্বর আন্তনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনের নিচে পড়ে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় মৃত্যুবরন করে যা শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে থানার অপমৃত্যু মামলা নম্বর ৩৮/১৭। পূর্ব বিরোধের জের ধরে ও মামলা বিচারাধীন থাকায় মূল ঘটনাকে আড়াল করার জন্য মোহাম্মদ আলী আমাদেরকে ফাঁসানোর লক্ষ্যে অপমৃত্যুকে হত্যাকান্ড উল্লেখ করে মৌলভীবাজার আদালতে একটি পিটিশন দায়ের করেন। আদালত দরখাস্থটি তদন্তের জন্য কমলগঞ্জ থানাকে নির্দেশ দেন।
এ ব্যাপারে পিটিশন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কমলগঞ্জ থানার এসআই মো. ফরিদ বলেন, অভিযোগটি তদন্তাধীন আছে। তবে এখনো ময়নাতদন্তের রিপোর্ট না আসায় কিছুই বুঝা যাচ্ছে না।

About the Author

-

%d bloggers like this: