Published On: Tue, Jun 25th, 2019

১৯ ঘন্টা পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক

Share This
Tags


জয়নাল আবেদীন, কমলগঞ্জ
সিলেট আখাউড়া রেল সেকশনের বরমচাল এলাকায় সিলেট থেকে ঢাকাগামী উপবন এক্সপ্রেস ট্রেনের কয়েকটি বগি কালভার্ট থেকে সিটকে ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটে। এরপর থেকে সিলেটের সাথে সারা দেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়ে। পরে ১৯ ঘন্টা পর গতকাল (২৪ জুন) সন্ধা ৭টায় ট্রেন চলাচল স্বাভাবি হয়েছে। স্বাভাবিক হওয়ার আগে সাময়ীকভাবে কুলাউড়া থেকে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক ছিল। তবে ঢাকা-সিলেট ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় রেলপথে যাত্রীরা সকল ট্রেনের টিকেট ফেরত দিয়েছেন।
ট্রেন দুর্ঘটনার পর কুলাউড়াসহ বিভিন্ন স্টেশন খেঁাঁজ নিয়ে জানা যায়, ঢাকা ও সিলেটগামী যাত্রীরা চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। দুর্ঘটনার পর থেকে যাত্রীরা দুর্ভোগে পড়ে টিকেট ফেরত দিয়ে টাকা নিয়ে চলে যান। সড়কপথ ও রেলপথ বন্ধ থাকায় স্টেশনে যাত্রীরা এসে মাস্টারদের সাথে কথা বলে ফিরে যাচ্ছেন। তবে কুলাউড়া পর্যন্ত ট্রেন চলাচলের কথা থাকলেও ঘটছে সিডিউল বিপর্যয়। ট্রেন আসবে কি-না, যথা সময়ে ছেড়ে যাবে কি না এসব নিয়ে কোন যাত্রী টিকেট ক্রয় করছেন না। এর সিডিউল বিপর্যয়ের মধ্যে দিয়ে কুলাউড়া থেকে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক ছিলে।

 

এ দুর্ঘটনায় এ পর্যন্ত ৫ জন নিহত ও প্রায় শতাধিক আহতের ঘটনার খবর পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে রেল মন্ত্রণালয়ের সচিব মোছাদ্দেল হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। চীফ মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার মিজানুর রহমানকে প্রধান করে ও টিএসটি মঈনুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল জলিল ও পিইউপিএস সুজিত কুমারকে সদস্য করে কমিটিকে আগামী তিন দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন প্রদান করতে বলা হয়েছে। আহতদের মধ্যে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৬৭ জন, মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ৭ জন ও সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২২ জনকে ভর্তি করা হয়েছে। কুলাউড়া ও মৌলভীবাজার হাসপাতালে অনেকেই চিকিৎসা নিয়ে ফিরে গেছেন বাড়ীতে।
ঢাকার যাত্রীরা বলেন, সড়কপথ ও রেলপথে যোগাযোগ বন্ধ থাকায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। তবে বেশি টাকা খরচ করে ও ভোগান্তি নিয়েও সড়কপথে ভেঙ্গে ভেঙ্গে যেতে হচ্ছে। তারা আরও বলেন, ট্রেন দুর্ঘটনার পর তারা টিকেট ফেরত দিয়ে টাকা নিয়ে চলে গেছেন। সিলেট স্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার শাহাব উদ্দিন ফকির বলেন, এখন যাত্রীরা এসে খবর জেনে ক্রয়কৃত টিকেট যাত্রীরা ফেরত দিয়ে যাচ্ছেন। তবে সন্ধা ৭টায় ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

About the Author

-

%d bloggers like this: