Published On: Fri, Jun 21st, 2019

গ্রাম আদালতের মামলা নিষ্পত্তিতে জেলার প্রথম হাজিপুর ইউনিয়ন

Share This
Tags

 

 

 

জয়নাল আবেদীন, কমলগঞ্জ প্রতিনিধি
গ্রাম আদালতের মামলা নিষ্পত্তিতে মৌলভীবাজার জেলায় প্রথম স্থান অর্জন করেছে কুলাউড়া উপজেলার হাজীপুর ইউনিয়ন। তাই ইউপি চেয়ারম্যান সাংবাদিক আব্দুল বাছিত বাচ্চু অর্জন করেছেন আরেকটি সফলতা। বৃহস্পতিবার দুপুরে মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে গ্রাম আদালত বিষয়ক বার্ষিক সমন্বয় সভায় এই তথ্য উপস্থাপন করা হয়।

বাংলাদেশ গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (২য় পর্যায়) প্রকল্পের আওতায় জেলা পর্যায়ে গ্রাম আদালত কার্যক্রমের অগ্রগতি পর্যালোচনা ও করণীয় বার্ষিক সমন্বয় সভায় মৌলভীবাজার স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক রোকনুজ্জামানের সভাপতিত্বে সভা উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক (সদ্য পদোন্নতিপ্রাপ্ত) মোঃ তোফায়েল ইসলাম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা লিগ্যাল এইড কর্মকর্তা হাসান শাহরিয়ার, এডিশনাল এসপি মোঃ আশরাফুজ্জামান, জেলা প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর অফিসার মেবেল সিলভিয়া রডব্রিক, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের বিভিন্ন কর্মকর্তা, জেলার সকল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, সচিব ও ইউএনডিপির কর্মকর্তারা। উদ্বোধনের পর ইউএনডিপির প্রতিনিধিরা ২০১৭ -১৯ পর্যন্ত গ্রাম আদালতে মামলা নিষ্পত্তির চিত্র তুলে ধরেন।

গ্রাম আদালতের সক্রিয় কার্যক্রম শুনানীর মাধ্যমে মামলা নিষ্পত্তির দিক দিয়ে জেলার মধ্য হাজীপুর ইউনিয়ন প্রথম স্থান হয়েছে মর্মে সভাকে জানানো হয়। বাংলাদেশ গ্রাম আদালত আইন ২০১৯ (সংশোধিত ২০১৩) এর বিধান বলে গ্রাম আদালত পরিচালিত হয়। এ আদালতগুলোকে সক্রিয় করার জন্য ইউএনডিপির সহায়তায় বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড এন্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব¬াস্ট) গ্রাম আদালত সক্রিয় করার প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। এই প্রকল্পের ২য় পর্যায়ের প্রকল্পের আওতাভুক্ত হয় হাজীপুর ইউনিয়ন।

হাজিপুর ইউপি চেয়ারম্যান সাংবাদিক আব্দুল বাছিত বাচ্চু বলেন, ২০১৬ সালে আমি হাজীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছি। ২০১৭ সাল থেকে হাজীপুর ইউনিয়নে নিয়মিত গ্রাম আদালতে বিচার অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তি, আপোষ নিষ্পত্তি এবং শুনানীর মাধ্যমে মামলার নিষ্পত্তি করা হয়। শুনানি হল গ্রাম আদালতের মূল ভিত্তি। জেলার মধ্যে প্রথম স্থান হওয়ার ঘোষণা আসলে মন আনন্দে ভরে যায়।

তিনি আরও বলেন, এই অর্জনে হাজীপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের সালিশকারীগণ মামলার বাদী-বিবাদী, সাবেক-বর্তমান জনপ্রতিনিধিসহ সর্বস্তরের জনসাধারণের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

About the Author

-

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

%d bloggers like this: