Published On: Mon, Jun 17th, 2019

বিশ্বের চাপে কিশোর মুর্তাজার মৃত্যুদণ্ড রদ করল সৌদি আরব

Share This
Tags

সবুজবাংলা আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ মৃত্যুদণ্ডের সাজা ভোগ করতে হবে না সৌদির কিশোর মুর্তাজা কুরেশিকে। তার শাস্তি মকুব করেছে সৌদি প্রশাসন।

মুর্তাজা কুরেশি। মাত্র ১০ বছর বয়েসে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে সরব হওয়ায় গ্রেফতার হয়েছিল এই কিশোর। সেটা ২০১৪ সাল। মুর্তাজার বয়স তখন ১৩ বছর। সেই বছরই সেপ্টেম্বর মাসে গ্রেফতার হয় এই কিশোর। সৌদির নিদান অনুযায়ী বয়স ১৮ হলেই মৃত্যুদণ্ডের সাজা পেতে হতো তাকে। এমন ভয়ঙ্কর শাস্তির কথা শুনে শিউরে উঠেছিল সারা বিশ্ব। তার মুক্তির জন্য প্রার্থনা করেছিল গোটা দুনিয়া। অবশেষে সকলের প্রার্থনায় এলো সুখবর। জানা গিয়েছে, মৃত্যুদণ্ড হচ্ছে না মুর্তাজার। ২০২২ সালের মধ্যে তাকে মুক্তিও দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে সৌদি প্রশাসন।

২০১৪ সালে লুকিয়ে বাহরিন পালিয়ে যাওয়ার পথে সৌদি সীমান্তে গ্রেফতার করা হয় ১৩ বছর বয়সী মুর্তাজাকে। রাষ্ট্রদোহিতা, দাদার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় উপস্থিত থাকা, পুলিশ থানায় মলোটভ ককটেল বোমা ছুঁড়ে মারা ও সন্ত্রাসবাদী সংঘঠনে যোগ দেওয়ার মতো মারাত্মক সব অভিযোগ আনা হয় মাত্র ১৩ বছর বয়সী একজন বালকের বিরুদ্ধে। প্রাথমিক ভাবে ১২ বছরের জেল হয় তার। কিন্তু নাবালক হওয়ায় গ্রেফতারির ৪ বছর পর থেকে সাজা পেতে শুরু করে মুর্তাজা।

 

বিচারের নামে প্রহসন ঘটিয়ে গত বছরের অগাস্ট মাসে তাকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে সৌদি আরব। মুর্তাজাকে বাঁচানোর জন্য ঝাঁপিয়ে পড়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল সহ সারা বিশ্বের মানবাধিকার সংগঠনগুলি। সৌদি আরবের কাছে তারা আবেদন জানিয়েছে মুর্তাজা কুরেইরিসের মৃত্যুদণ্ড রদ করার জন্য। বিশ্বের আবেদনে এতদিন অবশ্য সাড়া দেয়নি সৌদি আরব। তবে এ বার মুর্তাজার মৃত্যুদণ্ড রদ করেছেন সৌদি প্রশাসন। দ্য ওয়াল ব্যুরো

About the Author

-

%d bloggers like this: