Published On: Mon, Jun 17th, 2019

সরকারি টাকা নয়ছয় ! অভিযুক্ত ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী সেরা

Share This
Tags

 

সবুজবাংলা আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ: সরকারি টাকা নয়ছয়ের অভিযোগ উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে। তা-ও আবার খাওয়ার জন্য টাকা ওড়ানো। সেই অপরাধেই দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল। প্রথমে অস্বীকার করলেও, শেষমেশ সরকারি টাকা তছরুপের অভিযোগ মেনে নিলেন ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর স্ত্রী সেরা। সূত্রের খবর, এই তছরুপের জন্য তাঁকে সব মিলিয়ে দেশের তহবিলে ফেরত দিতে হবে ১৫ হাজার মার্কিন ডলার।

ইজরায়েলের আইন অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে যদি কোনও রাঁধুনি নিযুক্ত থাকেন, তা হলে বাইরে থেকে কোনও খাবার কিনে আনা বেআইনি। যা খাতে ইচ্ছে করবে, সব কিচেনেই বানানোর জন্য বলতে হবে। বাইরে থেকে কিনে আনা যাবে না। নেতানিয়াহুর স্ত্রী সেরা ঠিক এই কাজটাই করেছিলেন বলে প্রমাণিত হয়েছে।

প্রথমে অস্বীকার করলেও, পরে তিনি মেনে নিয়েছেন যে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে রাঁধুনি থাকা সত্ত্বেও তিনি সেই তথ্য গোপন করে বাইরে থেকে ‘কেটারিং পরিষেবা’ নিয়েছিলেন। এবং তার জন্য বিল করেছিলেন ৯৯ হাজার ৩০০ ডলার!

সরকারকে প্রতারণা ও আইনভঙ্গের অপরাধে গত বছর দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন তিনি। তবে তাঁর আইনজীবী আদালতে জানান, এই মামলার সঙ্গে সেরার কোনও যোগ নেই। প্রধানমন্ত্রীকে অর্থাৎ তাঁর স্বামীকে ক্ষমতা থেকে সরানোর জন্যই এ সব করা হচ্ছে বলে সওয়াল করেন তিনি। ওই আইনজীবীর আরও যুক্তি ছিল, এই নিয়ম-কানুনের বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী-পত্নী সেরাকে জানানোই হয়নি আগে থেকে।

শুধু তা-ই নয়। সেরা নিজে নন, প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে খাবারদাবার তথা অতিথি-আপ্যায়নের দায়িত্বে থাকা ‘হাউসহোল্ড ম্যানেজার’ই বাইরের কেটারিং সংস্থাকে পুরো অর্ডারটি দেন। যে অভ্যাগতদের নিমন্ত্রণ উপলক্ষে বরাতটি দেওয়া হয়েছিল, সেই অভ্যাগতদের খাবার পরিবেশনও করেছিলেন ওই ম্যানেজার। ফলে পুরো বিষয়টির খুঁটিনাটি সম্পর্কে ওয়াকিবহালইছিলেন না সেরা। দ্য ওয়াল ব্যুরো

About the Author

-

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

%d bloggers like this: